icon
Article Details

websiteearningchecker.com (ওয়েবসাইট আর্নিং চেকার ডট কম) এ কাজ করুন

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়

img by mrt
30 Dec, 2023

কিভাবে ব্লগের জন্য সঠিক ডোমেইন নাম নির্বাচন করবেন? যখনই আপনি একটি ব্লগ সাইট তৈরি করতে চান, আপনাকে ডোমেইন নাম নিবন্ধন সম্পর্কে চিন্তা করতে হবে। আপনার বিষয় এবং কীওয়ার্ডের উপর নির্ভর করে একটি ডোমেনের নিবন্ধন সাফল্যের প্রথম চাবিকাঠি।

আপনি যখন প্রথম রেজিস্ট্রেশন করেন বা একটি ব্লগ সাইটের জন্য একটি ডোমেন নির্বাচন করেন, তখন আপনি দেখতে পাবেন যে কেউ ইতিমধ্যেই আপনার পছন্দের ডোমেনটি রেজিস্ট্রেশন করেছে ৷

নতুন ব্লগারদের জন্য ডোমেন নির্বাচন একটি বড় চ্যালেঞ্জ কারণ, একটি ভাল ডোমেইন একটি ওয়েবসাইটের সৌন্দর্য বহন করে।

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়

আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে আপনি যখনই ব্লগের জন্য ডোমেইন নাম বেছে নেবেন, সেটি যেন সহজ সুন্দর এবং ছোট ডোমেইন নাম হয়।

একটি সুন্দর এবং আকর্ষণীয় ডোমেইন নাম আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটরকে অনেকাংশে বাড়িয়ে দিতে পারে।

যারা নতুন ব্লগের জন্য ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করতে চান, তাদের জন্য আমি কিছু ধারণা শেয়ার করব।

আপনি যদি সেই ধারণা অনুসারে একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করেন তবে এটি অবশ্যই আপনার এসইও এবং ওয়েবসাইটের জন্য উপকৃত হবে।

এছাড়াও ডোমেইন সম্পর্কে সমস্ত নির্দেশিকা এই পোস্টের মাধ্যমে আলোচনা করা হয়েছে।

ডোমেইন বলতে কি বুঝায়

ডোমেইন কি? কিভাবে আপনার ব্লগের জন্য একটি সেরা ডোমেইন নির্বাচন করবেন? অনেক লোক যারা ব্লগিং জীবনে নতুন বা ইন্টারনেটে সম্পূর্ণ নতুন তাদের প্রশ্ন থাকে যে, একটি ডোমেন বলতে আসলে কী বোঝায় এবং এটি কতটা দরকারী।

এই ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেট মানুষের নিত্যদিনের প্রয়োজনে পরিণত হয়েছে।

দিন দিন মানুষ অনলাইনে তাদের প্রতিটি ব্যবসাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। আপনি যদি আপনার ব্যবসা অনলাইনে করতে চান, তবে আপনার অবশ্যই একটি ওয়েবসাইট এবং একটি ভাল মানের ডোমেইন থাকতে হবে।

সহজ কথায়, ডোমেইন হল মানুষের নামের মত।

ডোমেইন নাম হল একটি ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট ঠিকানা এবং যেকোনো ব্রাউজার থেকে আপনি সেই ওয়েবসাইট বা নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে যেতে পারেন ডোমেনের মাধ্যমে।

একটি ডোমেইন ছাড়া আপনি আপনার ব্যবসা বা অন্য কিছু অনলাইনে প্রচার করতে পারবেন না।

উদাহরণস্বরূপ আপনাকে বলা যায়:

ধরুন আপনি ঢাকা যেতে চান, কিন্তু আপনি সঠিক ঠিকানা জানেন না। তাই কোনোভাবে ওই ঠিকানার নাম না জানলে আপনি ওই নির্দিষ্ট স্থানে যেতে পারবেন না।

একইভাবে আপনি যদি কোনো ওয়েবসাইটে যেতে চান, যদি আপনি সেই ওয়েবসাইটের নাম না জানেন তাহলে আপনি কখনই সেই নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে যেতে পারবেন না।

ডোমেন নামগুলি মানুষের নামের সাথে খুব মিল তবে তাদের মধ্যে পার্থক্য হল যে একই মানুষের নাম বিভিন্ন লোক ব্যবহার করতে পারে তবে একটি ডোমেন নাম বিভিন্ন লোক ব্যবহার করতে পারে না।

একটি ডোমেইন নাম শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি ব্যবহার করতে পারেন এবং এটি বিশ্বের একমাত্র অনন্য নাম। খেয়াল করলে দেখতে পারেন। যে আপনার মোবাইল ফোন নম্বর একই নয়।

ঠিক যেন ডোমেইন। অন্য কেউ আপনার ডোমেইন নামের সাথে মিলে যাওয়া কোনো ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে না।

আমরা সবাই কমবেশি Facebook.com, Youtube.com এবং Google.com জানি এবং এগুলোকে ওয়েবসাইট বলা হয়। যাইহোক, এই ওয়েবসাইটগুলি বিভিন্ন সমস্যা সমাধান নিয়ে কাজ করে।

আর এই ওয়েবসাইটগুলোর লেখায় লেখা থাকে, যেমন, আপনি যদি Facebook এ যেতে চান, তাহলে আপনাকে facebook.com লিখতে হবে। একইভাবে, আপনি যদি Youtube এবং Google.com-এ যেতে চান, তাহলে আপনাকে Youtube.com এবং Google.com লিখতে হবে। এবং এই সব নাম ডোমেইন বলা হয়।

আমাদের ওয়েবসাইটের ডোমেইন নাম seniorbd.com এবং অন্য কেউ এই নাম দিয়ে ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে না।

Domain Name সঠিক বানানের রাখা

একটি জিনিস মনে রাখবেন ভুল ডোমেইন নাম রেজিস্টার করবেন না। আপনি প্রথমে ভুল ডোমেন রেজিস্ট্রেশনের পরিণতি বুঝতে পারবেন না।

কিন্তু কিছু সময়ে আপনি ধীরে ধীরে বুঝতে পারবেন যে ভুল ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন ফলাফল আপনার ব্লগ সাইটের জন্য খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে।

ধরুন আপনার ওয়েবসাইটটি খবর প্রকাশের বিষয়ে এবং আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য khoboraseporun.com বা ekhonanernewz.com এর মতো একটি ডোমেইন নিন।

এখন যদি এই ধরনের ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম খুব বড় হয় তবে এটি আপনার জন্য খারাপ প্রভাব ফেলবে এবং ব্যবহারকারীরা এই নামগুলি খুব সহজে মনে রাখতে পারবে না।

যার কারণে আপনি পরবর্তীতে আপনার ওয়েবসাইটে সেই দর্শকদের খুঁজে পাবেন না।

ছোট এবং আকর্ষণীয় ডোমেইন নাম

আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের জন্য একটি সংক্ষিপ্ত এবং স্মরণীয় ডোমেইন নাম চয়েজ করুন।

এটি করার মাধ্যমে, আপনার ভিজিটররা যখন আপনার ব্লগে যেতে চায়, তারা সহজেই ব্রাউজারে আপনার ওয়েবসাইটের নাম টাইপ করতে পারে।

এবং আপনি যদি এমন একটি ডোমেইন নাম চয়েস করেন যার কোন অর্থ নেই এবং ডোমেইন নামটি মনে রাখা বা টাইপ করার জন্য খুব দীর্ঘ।

পরবর্তীতে এটি করলে সেই ভিজিটর কখনই আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগে যেতে পারবে না।

আর এইভাবে আপনি আপনার ব্লগ এবং ওয়েবসাইটের ভিজিটর হারাবেন আরএস ডোমেনের একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ অনেক ভূমিকা পালন করে।

ফ্রী এক্সটেনশন ডোমেইন থেকে বিরত থাকা

একটি জিনিস অবশ্যই জেনে রাখা উচিত যে বিনামূল্যের জিনিসের মান খুব ভাল এবং ভবিষ্যতে ফ্রি স্টাফ দিয়ে খুব বেশি দাম পাওয়া সম্ভব নয়।

একইভাবে, আপনি কখনই আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের জন্য একটি বিনামূল্যের এক্সটেনশন ডোমেন নাম দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটকে জনপ্রিয় করতে পারবেন না।

এবং আপনি যদি একটি বিনামূল্যের ডোমেইন নাম এক্সটেনশন দিয়ে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করেন, তাহলে আপনি খুব উচ্চমানের বা পেশাদার ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করতে পারবেন না।

এর জন্য আপনাকে একটি ডোমেইন নাম নির্বাচন করতে হবে যা গুণগত এবং সহজেই মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে।

নিম্নে কিছু ফ্রি ডোমেইন এক্সটেনশন গুলো তুলে ধরা হলো:

.Tk

.Ml

.GQ

.GQ

.GA

আপনি যদি এই ডোমেইন নেম এক্সটেনশনগুলি দিয়ে আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের জন্য উপরোক্ত ফ্রি ডোমেইন এক্সটেনশন সহ একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন, তাহলে আপনার ওয়েবসাইটটি কখনই পেশাদার হিসাবে তৈরি হবে না।

তাই সবসময় রেজিস্ট্রেশন বা ওয়েবসাইটের জন্য ফ্রি এক্সটেনশন ডোমেইন নির্বাচন করা থেকে নিজেকে বিরত রাখার চেষ্টা করুন।

Keyword এর সাথে মিল রেখে Domain

এবং অবশ্যই, আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে আপনার কীওয়ার্ড অনুসারে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করুন, আপনার ওয়েবসাইটটি কী তা জানতে আপনার ভিজিটরদের পক্ষে এটি খুব সুবিধাজনক হবে।

উদাহরণস্বরূপ, আমাদের ওয়েবসাইটের নাম হল: সিনিয়রবিডি / seniorbd.com

এবং যদি কেউ আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে, তাহলে তাদের অবশ্যই বুঝতে হবে, যে আমাদের ওয়েবসাইটটি প্রযুক্তি এবং কীভাবে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করা যায় সে সম্পর্কে লেখা।

দর্শকরা সহজেই তাদের ব্রাউজারে আপনার ওয়েবসাইট বুকমার্ক করবে এবং নিয়মিত ভিজিট করবে।

এবং কিওয়ার্ড অনুসারে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা একটি লাভজনক জিনিস হল যখনই কেউ গুগল সার্চে একটি কীওয়ার্ড লিখে সার্চ করে।

আর যদি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের নামের সাথে ঐ কিওয়ার্ডের মিল থাকে তাহলে গুগল আপনার ওয়েবসাইটের ফলাফল দেখাবে।

আর এই বিষয়টি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের ভিজিটর পেতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

Expired Domain রেজিস্ট্রেশন থেকে বিরত থাকা

মেয়াদোত্তীর্ণ ডোমেন কী তা আমরা অনেকেই জানি। তো চলুন আজকে দেখাই কি বা কি একটি মেয়াদোত্তীর্ণ ডোমেইন।

খুব সহজ কথায়, যেকোনো ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের পর একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা নির্ধারিত থাকে।

আর ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে যদি ডোমেইনটি আবার রেজিস্ট্রেশন না হয় তাহলে ডোমেইনটি মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যায়।

এবং একটি নির্দিষ্ট সময় পরে, যে কেউ পুনরায় সেই ডোমেইনটি পুনরায় রেজিস্ট্রেশন করতে পারে। যাইহোক, মেয়াদোত্তীর্ণ ডোমেইন নিবন্ধন করার আগে, আপনাকে অবশ্যই সেই ডোমেনের পুরানো ইতিহাস পরীক্ষা করতে হবে।

কারণ অনেক সময় গুগল এবং সোশ্যাল মিডিয়া এবং অন্যান্য পরিষেবা থেকে ডোমেইন ব্যান হয়ে যায়।

এবং তাই ডোমেনের প্রকৃত মালিক আর ডোমেইনটি পুনরায় নিবন্ধন করে না। একটা কথা মনে রাখতে হবে যে কেউ বিনা কারণে ভালো ডোমেইন কখনোই ছেড়ে দেবে না।

অবশ্যই মেয়াদোত্তীর্ণ ডোমেইন কেনার আগে ডোমেইনটির পুরাতন কার্যকলাপ দেখে নিন। আপনি এই ওয়েবসাইট http://web.archive.org থেকে সহজেই ডোমেইন চেক করতে পারেন, এই ওয়েবসাইটে আগের রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে কিনা।

আর আগের রেজিস্ট্রেশন থাকলে উপরের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার পছন্দের ডোমেনের আগের রেকর্ড দেখতে পারবেন।

ডোমেইনে হাইফেন ব্যবহার না করা

আরেকটি বিষয় উল্লেখ্য যে আপনার ডোমেইন রেজিস্টার করার সময় আপনার ডোমেনের ভিতরে কোন হাইফেন (-) ব্যবহার করবেন না কারণ এটি আপনার ওয়েবসাইট এবং এসইও এর উপর খারাপ প্রভাব ফেলবে।

কারণ কোন ভিজিটর কোন ডোমেইনের ভিতরে হাইফেন ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে চাইবে না। এটি কারো কারো জন্য বিরক্তিকর হতে পারে।

উদাহরণস্বরূপ, ধরুন আপনার একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ সাইট আছে এবং সেই ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম হল Bangla-tech-post.com বা Techtune-bd.com।

আর কোন ভিজিটর এই ধরনের ডোমেইন নাম মনে রাখতে পারে না কারণ, ডোমেইন দিয়ে হাইফেন ব্যবহার করে ব্লগ সাইট তৈরি করা কঠিন পথ অতিক্রম করার মতো কারণ এই ধরনের ডোমেইন নামের একটি ব্লগ সাইট বা ওয়েবসাইটকে জনপ্রিয় করতে অনেক সময় লাগবে।

তাই আপনার ডোমেনের ভিতরে কোন হাইফেন ব্যবহার না করার চেষ্টা করুন।

নাম্বার যুক্ত ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন না করা

ডোমেনে একটি নম্বর যোগ করে একটি ডোমেন রেজিস্টেশন করা একটি বোকামি কাজ কারণ অনেক লোক আপনার ওয়েবসাইট দেখার জন্য আবার ডোমেনে একটি নম্বর যুক্ত করতে চায় না।

ভিজিটররা নিশ্চয়ই জানতে চাইবেন কিভাবে সহজে কোনো হাইফেন বা সংখ্যা ব্যবহার না করে একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগে প্রবেশ করতে হয়।

যেহেতু অনেক দর্শক আপনার ডোমেনের হাইফেন বা নম্বর মনে রাখতে পারছে না, তাই আপনাকে একটি অনন্য বা একটি ছোট নাম বেছে নেওয়া উচিত।

যেমন ধরুন আপনার ডোমেইন নাম হল: Banglatips247.com বা banglaOnline4345.com এখন একটি বিষয় নিবন্ধন করুন।

কেউ কি চান বা একজন দর্শক ভবিষ্যতে ভিজিট করার জন্য এই ডোমেন নামগুলি মনে রাখতে সক্ষম হবেন?

এখন দেখুন যে কোন ভিজিটর এই ধরনের ডোমেইন নাম মনে রাখতে পারবে না বা পরবর্তী ভিজিটের জন্য এটি পুনরায় টাইপ করতে চাইবে কারণ এত লম্বা নামের সাথে সংখ্যা যোগ করা সম্ভব নয়।

অতএব, আপনার ডোমেনের সাথে সংখ্যা এবং হাইফেন ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন।

কিভাবে ডোমাইন নামে সিলেক্ট করব?

ধরুন আপনার ওয়েবসাইট শিক্ষা সম্পর্কিত যেখানে আপনি বিভিন্ন পরীক্ষার ফলাফলের ফর্ম পূরণ এবং বিভিন্ন চাকরির তথ্য শেয়ার করবেন। তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের নাম সেই অনুযায়ী হতে পারে।

  • nunotice.com
  • Jobnotice.com
  • Eduinfo.com
  • resultnews.com

একইভাবে, আপনি যদি প্রযুক্তি বা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখেন তবে সেই অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইট ডোমেইন নিবন্ধন করুন।

আমাদের কথা,

ডোমেইন নাম একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট ভিজিটর এবং গুগলের মাঝে পপুলার করার জন্য।

এজন্য অবশ্যই চেষ্টা করবেন একটি ভাল ইউনিক ডোমেইন নাম এবং ছোট আকর্ষণীয় ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করার জন্য। খুব সহজে আপনার ওয়েবসাইটে পয়েন্ট আকারে প্রকাশ পেয়ে যাবে। Tracking Code : 607405

আমাদের আর্টিকেল আপনার বিন্দুমাত্র ভালো লেগে থাকে, অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং নিয়মিত আমাদের সিনিয়রবিডি ডটকম সাইট টি ভিজিট করবেন।

Related News

View All

To Write Your Thoughts Please Log in First

Login
Home
Task
My Team
Latest News
User Guide